Bangla ArticlesFacebook Tips & Tricks

কিভাবে ফেসবুকে একটি ব্যবসায়িক পেজ খুলতে হয়?

কিভাবে ফেসবুকে একটি ব্যবসায়িক পেজ খুলতে হয় ?

 

১. ক্যাটাগরি সিলেক্ট করুনঃ

ফেসবুক পেজ তৈরির ক্ষেত্রে প্রথমে ক্যাটাগরি সিলেক্ট করুন। পেজ তৈরি করার ক্ষেত্রে বিভিন্ন রকম ক্যাটাগরির পেজ তৈরি করা যায় যেমনঃ লোকাল ব্যবসায়, কোম্পানী, ব্রান্ড, ব্যান্ড, পাব্লিক ফিগার, ইন্টারমেন্ট, কমিউনিটি ইত্যাদি।

তারপর Crieate page যাবেন যেয়ে এরখম দেখাবে, page name দিয়ে পেইজ খুলে ফেলবেন

কিভাবে ফেসবুকে একটি ব্যবসায়িক পেজ খুলতে হয়

 

২. কোম্পানীর বিস্তারিত উল্লেখ করুনঃ

ক্যাটাগরি সিলেক্ট এর পরের ধাপ এ আপনাকে ব্যবসায় এর সংক্ষিপ্ত বিবরণ দিতে হবে এবং ওয়েবসাইট থাকলে তার লিঙ্ক দিতে হবে। কমিউনিটি পেজ হলে আপনি প্রথমেই সুযোগ পেতে পারেন পেজ এর ইউজার নাম সিলেক্ট করার
যেমন page name red pen তাহলে ইউজার নেম দিবেন @mdomarmakki

কিভাবে ফেসবুকে একটি ব্যবসায়িক পেজ খুলতে হয় ?

৩. পেজ সেটিং করুনঃ

পেইজ খুলা শেষ করার পর আপনাকে পেজ এর পছন্দ এবং বিজ্ঞাপন এর বিষয় এ জিজ্ঞেস করবে, সেই পেজ গুলো SKIP করে আপনি সামনে চলে যেতে পারেন। এর পরবর্তীতে আপনাকে আপনার ফেসবুক পেজে নেওয়া হবে। আপনি দেখতে পারবেন আপনার পেজটি খালি। এক্ষেত্রে আপনার পেজটি পাবলিশ হওয়া থাকে। আপনি যদি চান সম্পূর্ন তথ্য দেওয়ার পূর্বে আপনার পেজকে পাবলিশ না করে প্রাইভেট রাখতে চান তাহলে পেজ সেটিং এ গিয়ে পেজ ভিজিবিলিটী পরিবর্তন করে দিন। এছাড়া পোষ্ট করার ক্ষেত্রেও পরিবর্তন করতে পারবেন। যেমন আপনি চাইলে পেজের হয়ে বা আপনার প্রোফাইলের হয়েও পোষ্ট করতে পারবেন। কিভাবে নোটিফিকেশন পেতে চান কখন পেতে চান তাও নির্ধারন করে দিতে পারবেন।

সেটিং এর একটি গুরুত্বপূর্ন অংশ হল আপনি চাইলে পেজের দায়িত্ব অন্য কাউকে দিতে পারবেন। আপনি যদি অনেক ব্যস্ত থাকেন তাহলে আপনার পেজ পরিচালনার জন্য কাউকে নিয়োগ করে পেজ Role দিতে পারবেন। এর ফলে আপনার সময় বাঁচবে।

 

৪. কভার ফোটো দিনঃ

যখন আপনি পেজ তৈরি করবেন দেখবেন পেজ প্রায় সম্পূর্ণ খালি। প্রথমে পজের একটি আকর্ষনীয় তথ্যমূলক কভার ফোটো দিন। কভার ফোটো যেন ৯৮১X৩৬৩ সাইজের হয়।

 

৫. প্রোফাইল পিকচার যুক্ত করুনঃ

কভার ফোটো যুক্ত করার পর আপনার কাজ হল একটি প্রোফাইল পিকচার যুক্ত করা। আপনার ব্রান্ড যদি পরিচিত থাকে অর্থাৎ আপনি যদি কোন জনপ্রিয় ব্রান্ডের জন্য পেজ খুলেন তাহলে প্রোফাইল পিকচার ব্যবসায়ের লোগো ব্যবহার করতে পারেন। অথবা আপনার সবচেয়ে জনপ্রিয় পণ্যটি তুলে ধরতে পারেন । ব্যক্তিগত ভাবে আমি বলবো লোগো দেয়ার জন্য ।

 

৬. About সেকশন পরিপূর্ন করুনঃ

আপনার পেজের About টেবে গিয়ে পেজের সকল তথ্য দিন এবং পেজকে আপডেট করুন। এখানে আপনি বিভিন্ন রকম তথ্য দিতে পারেন যেমন ক্যাটাগরি, সাব-ক্যাটাগরি, ঠিকানা, সংক্ষিপ্ত বিবরণ, বিস্তারিত বিবরণ, ওয়েবসাইট লিঙ্ক, ফোন, ইমেইল ইত্যাদি।

 

৭. Call – To – Action বাটন যুক্ত করুনঃ

আপনি চাইলে ইচ্ছেমত বিভিন্ন বাটন যুক্ত করতে পারবেন। যেমনঃ Book Now, Contact Us, Use App, Play Game, Shop Now, Sign Up অথবা Watch Video। আপনার যেটি প্রয়োজন সেই বাটনটি যুক্ত করুন। এই প্রত্যেকটি বাটনে প্রয়োজনীয় লিঙ্ক যুক্ত করা যায়। তাই ওয়েবসাইটের ভিজিটর বৃদ্ধির জন্য  এই বাটনটি ব্যবহার করতে পারেন।

৮. একটি URL নির্দিষ্ট করুনঃ

ফেসবুক প্রতিটি পেজের জন্য একটি URL দিয়ে থাকে। তবে আপনি চাইলে সেই URL কে নিজের মত করে তৈরি করতে পারেন। তাই পেজ এর জন্য ১টি URL  তৈরি করে ফেলুন। URL তৈরি করা গুরুত্বপূর্ণ কারণ সহজে ভিজিটর আপনার পেজ মনে রাখতে পারে। পেজে ৩০টি লাইক হলে ফেসবুক পেজ এর URL ঠিক করার সুযোগ দেয় ফেসবুক। URL সেট করার অপশনটি পাবেন About Tab এ।

এই পদক্ষেপ গুলো অনুসরন করলে আশাকরি আপনি একটি প্রোফেশনাল পেজ তৈরি করতে পারবেন। যা আপনার ওয়েবসাইটের ভিজিটর বৃদ্ধি করবে।

Tags

MD Omar makki

My name is MD Omar Makki, I’m working as Web Developer/Designer, SEO (Search Engine Optimization), SMM (Social Media Marketing), SMO (Social Media Optimization), Hosting Provider, SMA (Social Management Account), Business Adviser, E-Commerce Business Developer from last 6 years.

Related Articles

Leave a Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!
Close
Close