Bangla StoryStory (Writer)

আম্মায় কি ছ্যাকা দিছে নাকি

আম্মায় কি ছ্যাকা দিছে নাকি

 

সেদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে দাঁত ব্রাশ করতে করতে একটু রোদে গিয়ে দাঁড়াই।আগের রাতে বৃষ্টি পরায় আবহাওয়াটা একটু শীতল।সেখানে গিয়ে দেখি আব্বু দুই হাত দিয়ে মুখ চেপে গম্ভির ভাবে বসে আছে।দেখে মনে হলো সদ্য ছ্যাকা খেয়ে ব্যাকা হয়ে আছে।তার কাছে গিয়ে জিজ্ঞাসা করলাম…..
-আব্বু কি হইছে এভাবে বসে আছো কেন আম্মায় কি ছ্যাকা দিছে নাকি….??সকালে না তুমি পার্কে যাও তোমার হাসির ক্লাব সদস্যদের সাথে পাগলের মতো হাসো আজ যাও নাই…??
আমার মুখের দিকে একটু তাকিয়ে আবার পূর্বের ন্যায় বসে একটা দীর্ঘ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলো।যে নিঃশ্বাস হাজার হাজার ব্যার্থতা জানান দিচ্ছিলো।অন্য কোন দিন হলে এতোক্ষণে বকা খেয়ে সকালের নাস্তা হয়ে যেতো কিন্তু আজ তিনি কিছু বললেন দেখে আবার বললাম……
-আব্বু কিচ্চে আমারে খুইল্লা কও মনে দুঃখ্য শেয়ার করলে মন হালকা হয় কও তোমার কি সমস্যা হইছে দেখি আমি কিছু করতে পারি নাকি….??
-কি আর হইবরে বাপ আমাদের হাসির ক্লাবের সদস্যরা আর আগের মতো হাসতে পারে না।কত চেষ্টা করে তাদের নাকি হাসি আসে না।কি করি বলতো….??হাসি ছাড়া যে মানুষের জীবন চলে না….!!আমাদের হাসি হারিয়ে গেছে….!!
-ও এই ব্যাপার আমারে আগে কবেন না এতো কোনো সমস্যাই নাই আপনার ফোনটা দেন সমস্যার সমাধান করে দিচ্ছি…..!!
আব্বুর ফেবু থেকে বাংলাদেশের ওয়ান এন্ড অনলি ফুল এন্ড ফাইনাল দি লেজেন্ডারি বিখ্যাত গায়ক খান হেলালের পেইজে লাইক দিয়ে বললাম……
-এই নেও কাল থেকে সকালে হাসি না আসলে এই পেইজের কমেন্ট গুলো পড়বা দেখবা চাইলেও আর হাসি থামাতে পারবা না নেও…..!!
আব্বুর হাতে ফোন দিয়ে পাঁচ কদম হাঁটেই আব্বুর হাসির শব্দ কানে আসলো।নিজের উপর গর্ব হচ্ছে কত বড় একটা উপকার করলাম।তাদের হারিয়ে যাওয়া অনেক সাধের হাসি ফিরিয়ে দিলাম।
পরদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে ভাবলাম একটু গিয়ে দেখি আব্বুর ক্লাবের সদস্যদের অবস্থা কি…??
ব্রাশ হাতে পার্কের দিকে রওনা দিলাম পার্কের গেটের কাছে যেতেই দেখি আব্বু বোল্টের চেয়েও দ্রুত গতিতে দৌড়াচ্ছে।তার পিছন পিছন আমিও দৌড় লাগালাম কিছু দুর গিয়ে আব্বুকে থামিয়ে বললাম….
-আব্বু এভাবে দৌড়াচ্ছ কেন…??
-আর কইছ না বাজান তোর কথা মতো কমেন্ট পড়ছিলাম আর হাসতে হাসতে মাটিতে গরা গরি খাচ্ছিলাম দুই জন হাসতে হাসতে কাপর নষ্ট করে ফেলেছে।আমাদের এলাকার মতি মাষ্টরে কইল আব্দুল মতি কিসের কমেন্ট এতো জোস….??
আমি কইলাম জানি নারে আমার ছেলে খালি কমেন্ট পড়তে কইছে তবে মনে হয় কোনো একটা ভিডিওর কমেন্ট এগুলো।মতি মাস্টর কইল প্লে কর তো দেহি কি ভিডিও।আমিও প্লে করলাম তারপর কিছুক্ষণ ভিডিও দেখার পর কিছু একটা পরার শব্দ হলো তাকিয়ে দেখি মতি মাষ্টর বুকের বা পাশে হাত দিয়ে ধরে মাটিতে পরে আছে…..!!
তার এমন অবস্থায় সবাই আমার উপর প্রচন্ড খ্যাপছে সবাই বলছে আগে মতি মাষ্টর ঠিক হোক তারপর তোমাকে আর তোমার ছেলেকে দেখে নেব এক হাত।এসব শোনার পর আমিও জ্ঞান হারালাম।তাদের ভয়ে না মতি মাষ্টরের মেয়ের ভয়ে।আগের দিনই নাহিদা আমার প্রোপজে রাজি হয়েছে আর আজ আমার জন্য তার আব্বুর এই অবস্থা…..!!
আমি আর নাহিদার আব্বু হাসপাতালে পাশা পাশি বেডে শুয়ে আছি।আমাদের দুই পরিবারের সবাই হাসপাতালে উপস্থিত।দুজনেই এখন মোটা মুটি সুস্থ।তিনি বললো……
-সেদিন কার গান শুনাইছিলিরে আব্দুল মতি…??
-কি জানি নাম কান লাল নাকি কি জানি…??
-আমি:আব্বু কান লাল না খান হেলাল।
-উলালা এইডা কোন ক্ষেতের মুলা…?? আমি ইংরেজির শিক্ষক হওয়েও সেদিন ওর ইংলিশ শুনে আজ হাসপাতালে তাহলে দেশবাসির ওর গান শুনে কি অবস্থা হয় ভাবতেই কান্না পাচ্ছে….!!নাহ আমাকেই কিছু একটা করতে হবে দেশের মানুষকে বাঁচাতে হবে…!!ওই বেটা তো দেশের জন্য দেশের মানুষের জন্য একটা আকঙ্ক…!!
বলেই নাহিদাকে বললো আম্মু যা তো একটা খাতা আর কলম নিয়ে আয়।এ সমস্যার সমাধান করতেই হবে।নাহিদা খাতা আনতে চলে গেলো আমি শুয়ে শুয়ে ভাবছিলাম পরের বার আব্বুকে আমার আইডি দিয়ে বলব হাসি না আসলে এগুলো পড়বা কেমন…..!!
তখনই আব্বু বলে উঠলো আর কিছু বলিসে বাপ এবার হত্যার দায়ে জেলে যেতে যেতে বেঁচেছি।পরের পার তোর পদ্ধতি অবলম্বন করলে দেখা গেলো সোজা চৌদ্দ শিকের উপারে পাঠিয়ে দিলি….??
আশ্চর্য আমার মনের কথা আব্বু জানলো কিভাবে….??
আব্বুর হাসির ক্লাব
আসাদ আরীয়ান

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Alert: Content is protected !!
Close
Close